আপনার লেখা আর্টিকেল আমাদের সাইটে পাবলিশ করুন

ফের লিভারপুলের হোঁচট

ফের লিভারপুলের হোঁচট

বছরের শেষটা ভালো হলো না লিভারপুলের। অনেক সুযোগ নষ্ট করে নিউক্যাসল ইউনাইটেডের বিপক্ষে পয়েন্ট হারিয়েছে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল।

নিউক্যাসলের মাঠে বুধবার ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়েছে। শিরোপা ধরে রাখার অভিযানে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে হোঁচট খেল লিভারপুল। গত রাউন্ডে ওয়েস্ট ব্রমউইচ অ্যালবিয়নের বিপক্ষে শেষ দিকে গোল খেয়ে ১-১ ড্র করেছিল তারা।

নিউক্যাসলের বিপক্ষে লিগে টানা পাঁচ জয়ের পর পয়েন্ট হারাল লিভারপুল।

বছরের শেষ লিগ ম্যাচে বল দখলে চ্যাম্পিয়নরা একচেটিয়া আধিপত্য করলেও শুরুতে আক্রমণে খুব একটা সুবিধা করতে পারছিল না তারা। ত্রয়োদশ মিনিটে ভালো একটি সুযোগ তৈরি করে নিউক্যাসল। বাঁ দিক দিয়ে বল নিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে কাছ থেকে ক্যালাম উইলসনের নেওয়া শট ব্লক করেন ফাবিনিয়ো।

লিভারপুল প্রথম উল্লেখযোগ্য সুযোগ পায় ৩৪তম মিনিটে। জর্ডান হেন্ডারসনের ক্রস ডি-বক্সে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে বাঁ পায়ে শট নেন মোহামেদ সালাহ। এগিয়ে এসে হাত বাড়িয়ে কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করেন নিউক্যাসল গোলরক্ষক কার্ল ডারলো।

প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে গোল প্রায় পেয়েই যাচ্ছিলেন রবের্তো ফিরমিনো। সাদিও মানের ক্রসে ছয় গজ বক্সের সামনে থেকে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের জোরালো হেড ডান দিকে ঝাঁপিয়ে ফেরান ডারলো।

৫৪তম মিনিটে ডান দিক থেকে ট্রেন্ট অ্যালেকজ্যান্ডার-আর্নল্ডের ক্রসে মানের হেডে বল পাশের জালে লাগে। ৬৬তম মিনিটে ফিরমিনোর বাড়ানো বল ধরে বাইরে মেরে হতাশ করেন সালাহ। একটু পর কর্নারে ফিরমিনোর হেড অল্পের জন্য লক্ষ্যে থাকেনি।

৭৯তম মিনিটে দারুণ এক সেভ করে জাল অক্ষত রাখেন লিভারপুল গোলরক্ষক আলিসন। ফ্রি কিকে স্বাগতিক ডিফেন্ডার কিয়ারন ক্লার্কের হেড বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে ফেরান তিনি। আর শেষ দিকে ফিরমিনোর হেড ফিরিয়ে নিউক্যাসলের পয়েন্ট নিশ্চিত করেন ডারলো।

 

১৬ ম্যাচে নয় জয় ও ছয় ড্রয়ে ৩৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে লিভারপুল। এক ম্যাচ কম খেলে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে ১৪তম স্থানে নিউক্যাসল।

১৫ ম্যাচে ৩০ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ১৬ ম্যাচে ২৯ পয়েন্ট নিয়ে লেস্টার সিটি তিনে, তাদের সমান পয়েন্ট নিয়ে চারে আছে এক ম্যাচ কম খেলা এভারটন।

DM Sayed
মানুষ কখনো হারে না, হয়তো সে জিতবে নয়তো সে শিখবে